West Bengal

সাগরদিঘি নিয়ে মুর্শিদাবাদের ২ সাংসদের বিরুদ্ধে অপ্রচার, ক্ষুব্ধ মমতা

ফোনেই মুর্শিদাবাদ জেলার তৃণমূল নেতৃত্বের সঙ্গে রবিবার বৈঠক করছিলেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেই বৈঠকে জেলার দুই সাংসদ খলিলুর রহমান এবং আবু তাহের খান অভিযোগ করেন তাঁদের বিরুদ্ধে সংবাদমাধ্যমে অপ্রচার করা হয়েছে। এই অভিযোগ শোনার পর ক্ষুব্ধ নেত্রী। তিনি সাংসদদের জানিয়ে দেন এর পিছনে কংগ্রেস-সিপিএম-বিজেপির হাত রয়েছে।

শুক্রবার কালীঘাটে বৈঠকের পর কিছু সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ পেয়েছিল যে দুই সাংসদকে সতর্ক করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। তাঁদের সঙ্গে নাকি কংগ্রেস নেতাদের যোগাযোগের কথা জানা গিয়েছে। এই বিষয়টি তুলে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের কাছে নালিশ জানিয়ে খলিলুর রহমান বলেন, ‘দিদি আমাদের সম্মানহানী হচ্ছে। আমাদের সম্পর্কে সংবাদ মাধ্যমে বাজে খবর ছেপেছে।’ এই অভিযোগ শুনে ক্ষুব্ধ দলনেত্রী বলেন,’কংগ্রেস-সিপিএম-বিজেপি যৌথ ভাবে এই কাজ করছে। আমি কোনও কিছুই সেই ভাবে তোমাকে বলিনি। এক শ্রেণির মিডিয়া এই কাজ করছে।’ এই সব কিছুতে কান না দিয়ে দলের কাজেতে মন দিতে বলেন তিনি। (পড়তে পারেন। মমতাকে মোক্ষম জায়গায় আঘাত করতে পেরেছি দেখে তৃপ্তি হচ্ছে: অধীর)

দলের বিধায়করাও অভিযোগ করেন, সাগরদিঘিতে হারের পর এমন প্রচার শুরু হয়েছে। এই সব অপ্রচারে কান না দিয়ে সবাইকে মিলেমিশে কাজ করতে বলেছেন দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

এই খবর ইউনিকাস প্রতিস্থাপন করেনি তাই এর কোনো কৃতিত্ব অথবা দ্বায়িত্ব ইউনিকাস এর নয়। দয়া করে এর উৎস টি খুঁটিয়ে দেখুন। এই পোস্ট টি আপত্তিকর হলে, তা অবিলম্বে মুছে ফেলতে আমাদের সত্বর যোগাযোগ করুন।