Nation & World

পাকিস্তানে আত্মঘাতী জঙ্গি হানা, উড়ে গেল গাড়ি, ৯ পুলিশের মৃত্যু:

পাকিস্তানে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনা। ফের আত্মঘাতী হামলা পাকিস্তানে। দক্ষিণ পশ্চিম পাকিস্তানে একটি পুলিশ ট্রাকে গিয়ে ধাক্কা দেয় একটি বাইক। আসলে সে সুইসাইড বোম্বার।এরপর সে নিজেকে উড়িয়ে দেয়। তার জেরে মৃ্ত্যু হয়েছে ৯জন পুলিশকর্মীর। নিউজ এজেন্সি সূত্রে এমনটাই খবর। পুলিশের এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, কোয়েটা থেকে প্রায় ১৬০ কিমি পূর্বে সিব্বিতে এই ঘটনা হয়েছে। রয়টার্স সূত্রে খবর জায়গাটি বালুচিস্তান প্রদেশের রাজধানীর মধ্য়ে পড়ে। 

পুলিশ আধিকারিক আব্দুল হাই আমির এএফপিকে জানিয়েছেন সুইসাইড বোম্বার একটি বাইকে চেপেছিলেন। এরপর পেছন থেকে সেটি ট্রাকে ধাক্কা দেয়। আর তখনই ভয়াবহ বিস্ফোরণ হয়।

ডন পত্রিকায় প্রকাশিত রিপোর্ট অনুসারে জানা গিয়েছে আহতদের হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বোম্ব ডিজপোজাল স্কোয়াডকে এলাকায় মোতায়েন করা হয়েছে। সপ্তাহ ব্য়পী পশু মেলা হচ্ছিল। সেখানে নিরাপত্তার কাজে মোতায়েন করা ছিল পুলিশ। সেই নিরাপত্তারক্ষীরাই গাড়িতে চেপে ফিরছিলেন। তখনই পেছন থেকে আত্মঘাতী হামলা হয়। তবে এখনও পর্যন্ত কোনও জঙ্গি গোষ্ঠী এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। 

এদিকে বালুচের জঙ্গি গোষ্ঠী দীর্ঘদিন ধরে সরকারের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। তারা এই ঘটনার পেছনে রয়েছে কি না তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এদিকে প্রতিবেশী পাকিস্তানে এর আগেও এই ধরনের হামলা আগেও হয়েছে। জঙ্গিরা কেড়ে নিয়েছে সাধারণ মানুষের প্রাণ। এমনকী রেহাই পায়নি চিনের নাগরিকরাও। 

গত ২৬শে এপ্রিল করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বিস্ফোরণে তিনজন চিনা নাগরিক সহ চারজনের মৃত্যু হয়েছিল। এর আগেও পাকিস্তানের মাটিতে বার বার আক্রান্ত হয়েছেন চিনের নাগরিকরা। এর তীব্র নিন্দা করেছিল চিন। 

পাকিস্তানের মাটিতে বার বার হামলার মুখে পড়েছেন চিনের নাগরিকরা। গত ২৬শে এপ্রিল করাচি বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে বিস্ফোরণে তিনজন চিনা নাগরিক সহ চারজনের মৃত্যু হয়। ওই আত্মঘাতী বিস্ফোরণের পরেই প্রশ্ন ওঠে, তবে কি এবার পাকিস্তানে এয়ার স্ট্রাইক করবে চিন? তবে সূত্রের খবর, ঘটনা অন্যদিকে মোড় নিতে পারে এটা আঁচ করেই ইসলামাবাদে থাকা চিনের দূতাবাসে চলে গিয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী। সেখানে গিয়ে তিনি বলে এসেছিলেন, দুষ্কৃতীরা শাস্তি না পাওয়া পর্যন্ত আমরা বিশ্রাম নেব না। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, পাকিস্তানের মাটিতে বার বার চিনের নাগরিকদের উপর হামলা হচ্ছে। এর জেরে এবার যথেষ্ট চাপে পড়তে পারে পাকিস্তান। যার জেরে চিন ও পাকিস্তানের মধ্যে অর্থনৈতিক করিডর তৈরির কাজেও এবার বড় ধাক্কা খেতে পারে বলেও মনে করা হয়েছিল। তার রেস ফুরানোর আগেই পাকিস্তানে আত্মঘাতী হামলা।

এই খবর ইউনিকাস প্রতিস্থাপন করেনি তাই এর কোনো কৃতিত্ব অথবা দ্বায়িত্ব ইউনিকাস এর নয়। দয়া করে এর উৎস টি খুঁটিয়ে দেখুন। এই পোস্ট টি আপত্তিকর হলে, তা অবিলম্বে মুছে ফেলতে আমাদের সত্বর যোগাযোগ করুন।